টাকার রহস্য

500 tk Bank Note
কেউ কি কখনও চিন্তা করেছেন কেন আপনার টাকার নোটে লিখা থাকে চাহিবামাত্র ইহার বাহককে ২০/৫০/১০০/৫০০/১০০০ টাকা দিতে বাধ্য থাকিবে?

এর মানে কি? ধরি, আপনার কাছে ২০ টাকার নোট আছে। আপনি বলছেন এটা ২০ টাকা। কিন্তু আপনার নোটে লিখা যে চাহিবা মাত্র ইহার বাহককে ২০ টাকা দিতে বাধ্য থাকবেন। যারা পেপার মানি নিয়ে একটু পড়ালেখা করেছেন তারা ব্যাপারটি জানেন।

আসলে আপনি আপনার হাতে যে নোটটি ধরে আছেন সেটির নিজস্ব কোন মূল্য নেই, সেটি একটি রিপ্রেজেন্টর মাত্র। ব্যাপারটা এরকম যে মনে করুন আপনি এক ভরি স্বর্ণ একজন স্বর্ণকারের কাছে আমানত রাখলেন। সে আপনাকে এর পরিবর্তে একটি কাগজে লিখে দিল। এখন আপনার কাগজটি ঐ স্বর্ণমূল্যের সমান মূল্য ধারণ করে। আপনি কেবল ঐ কাগজটি ফেরত দিলেই এ স্বর্ণটি ফেরত পাবেন। আপনি কি করলেন আপনার বন্ধুকে স্বর্ণ সরাসরি না দিয়ে নোটটা দিলেন। এরপর আপনার বন্ধু মুদি দোকানে গিয়ে সদাই করে স্বর্ণ না দিয়ে দিল ঐ নোটটা। এভাবে স্বর্ণ স্বর্ণকারের কাছেই থেকে গেল পরিচালিত হতে থাকল এই নোটটা। কোন এক সময় এক ব্যাক্তি যদি উক্ত নোটটা স্বর্ণকারের কাছে নিয়ে যায় তাহলে সে স্বর্ণ ফেরত দিতে বাধ্য থাকবে।

এখন আপনি বলুন আপনার এই নোটের পরিবর্তে আপনি যদি আপনার ব্যাংকে গিয়ে আপনার প্রকৃত মূল্য ফেরত চান তাহলে কি পাবেন? হ্যা আপনি পেতে পারতেন যদি ঐ একটি নোটের পরিবর্তে গচ্ছিত স্বর্ণখন্ডটি তার কাছে থাকত। কিন্তু, ব্যাপারটিতো এখন আর সে রকম নেই। কারণ উক্ত স্বর্ণকার যখন দেখল যে কেউ তার নিকট আর স্বর্ণ ফেরত নিতে আসছে না সে একটা চালাকি করল। সে তার কাছে গচ্ছিত ঐ স্বর্ণটির পরিবর্তে একাধিক একই নোট বের করল এবং বাজারে ছেড়ে দিল। কি ধরতে পেরেছেন ব্যাপারটা? (এভাবেই একসময়ের স্বর্ণ বন্ধক রাখার লোকেরা টাকার উদ্ভব করে)

হ্যা। আসলে এই নোটের পরিবর্তে ব্যাংকে থাকার কথা সমমূল্যের স্বর্ণ। কিন্তু আপনি কি জানেন যে ব্যাপারটি এখন আর তা নেই। কারণ আপনার টাকার মূল্য নির্ধারণ হচ্ছে আপনার ব্যাংকে রক্ষিত মার্কিন ডলার দিয়ে।

আপনি মনে করছেন তাহলে উক্ত মার্কিন ডলারের পরিবর্তে নিশ্চয়ই সমমূল্যের স্বর্ণ রক্ষিত আছে, মার্কিন ব্যাংকে। দু:খিত, সে সময় অনেক আগে পার হয়ে গেছে। মার্কিন ডলার এখন নিজস্ব সরকার কর্তৃক ঘোষিত অর্থমান বহন করে।

কি, আপনি ভাবছেন তার মানে মার্কিন সরকার চাইলে যে কোন সময় Out of thin air অর্থ তৈরী করতে পারে। অবশ্যই পারে। আপনার কি মনে হয়? ওবামা ঘোষিত বেইলিং মানি কিভাবে আসল????

যাই হোক আপনি হয়ত অন্তুত এই ভেবে সন্তুষ্ট যে মার্কিন সরকার এই অর্থমান জারি করে। দু:খিত, আপনি আবারও ভুল করছেন। এই অর্থ আসে Federal Reserve System থেকে, যেটি কার্যত একটি Private প্রতিষ্ঠান।

কি বললেন???

হ্যা তাই। মার্কিন সরকারের যখন টাকার প্রয়োজন সে কার্যত ফেডারেল রিজার্ভ সিস্টেম থেকে টাকা ধার নেয়। আর এভাবে শুরু হয় পারপেচুয়াল ডেট(Perpetual Debt) । কারণ আপনি এই ধার কখনই পরিশোধ করতে পারবেন না?? হে হে। পরিশোধ করতে হলে এই ফেডারেল রিজার্ভ থেকেই আবার ধার নিতে হবে।

(তবে, মার্কিন ডলারের এই নিজস্ব মূল্যমান আগে ছিল না। এর পরিবর্তে বরং সমমূল্যের স্বর্ণমুদ্রা জমা থাকত ব্যাংকে। পরে কিভাবে এটা পরিবর্তন হয় জানতে নিচে প্রদত্ত ৪ নম্বর লিংকটি দেখুন)

কি ভাই?? তাহলে এখন বুঝতে পারছেন কারা প্রকৃতপক্ষে পৃথিবী পরিচালনা করছে?? এরা আরও অনেক সিনিস্টার প্ল্যান করে রেখেছে । শুধু অপেক্ষা করুন।

এ বিষয়ে আরও জানতে:

১. http://www.youtube.com/watch?v=VAWZTUBy1x0

২. http://sonarbangladesh.com/blog/lucky13/112883

৩. http://www.sonarbangladesh.com/blog/shamim/40153

৪. http://www.youtube.com/watch?v=sODUGGH__Fc

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s